আমি তো চেয়েছিলাম সামান্যই হতে

আমি তো চেয়েছিলাম সামান্যই হতে,
কিন্তু ওরা বলল, তুমি সামান্য নাতো!
তুমি হবে মস্ত বড়, তোমার হবে খ্যাতি।

আমি বললাম বেঁচে থাকা ছাড়া,
দরকার আছে আর কিবা?
মিথ্যে বলল ওরা, ভ্রান্তিতে আমি ছুটলাম,
এটা চাই, ওটা চাই, সবটা আমার চাই।

সামান্য হওয়ার স্বপ্নে আমি
হারায়ে গেলাম, বিভোর হলাম।

আমার ছোট্টটিকে খুঁজে পেলাম না আর,
পেলাম না, সেই ছোট ছোট স্বপ্নগুলি
সেগুলো সামান্যই ছিল।

হয়তো কোনটি ছিল সকাল বেলা উঠার স্বপ্ন,
ভোরের শিশির বিন্দু ছোঁয়ার স্বপ্ন,
কিংবা খুব সামান্য
দুপুর বেলা ঘুমন্ত মায়ের চোখ ফাঁকি দেয়া,
আর খলেতে যাবার স্বপ্ন।

সত্যি পেলাম না,
সামান্য হতে চেয়ে
আমি বিলীন হতে যাচ্ছি।
অথচ খুব বেশি দরকার আমার ছিল না।
ওরা আমাকে ভুলিয়ো দিল।
ওরা আমাকে আমার হতে দিল না।

আমি তো ভালোবাসি সকাল,
ভালোবাসি মেঘ,
ভালোবাসি রোদ হতে,
ইচ্ছেগুলো সামান্যই ছিল।