নেত্রকোনা

সূর্য ডোবার পথে। আমরা সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না ময়মনসিংহ কি আজকেও যাবো? নাকি কালকে রওনা দিবো হোটেলে রেস্ট নিয়ে? আপাতত শরীরের যে অবস্থা ছিল তাতে ময়মনসিংহ যাওয়া বিলম্বিত করেছিলাম। কিন্তু ঘটনাপ্রবাহে ঐদিন তিন পর্যটককে এক রাশ ক্লান্তি ক্ষুধা নিয়ে রওনা দিতে হয় ময়মনসিংহ এর উদ্দেশ্যে। সেই গল্প হবে নেত্রকোনার গল্প বলা শেষ হলেই।
DSCN1162
Continue reading…

বেশিরভাগরাই কেন জানি একই ভাবে বলে!

বেশিরভাগরাই কেন জানি একই ভাবে বলে! একই রকম ভাবে বলে। বলার ধরণটাও তো স্বকীয় হতে পারে। তা না। কি সমালোচনা, আর কি পর্যালোচনা, কি যুক্তি, কি তর্ক! বেশিরভাগদের কথা বার্তা সুরের মধ্যে ভিন্নতা পাই না।

দুঃখ হচ্ছে শীতের শুষ্ক ঝরা পাতার মতন

দুঃখ হচ্ছে শীতের শুষ্ক ঝরা পাতার মতন। সব দুঃখের পাতাই ঝরা পাতা। শুকনো হতে হবে। দুঃখ যার যত বেশি তার পাতা ততটাই শুষ্ক। ঝরা পাতা তাই ধরতে গেলে সাবধান। কারণ তা স্পর্শকাতর। অল্পতেই ভেঙ্গে যেতে পারে।
সুখটা হচ্ছে কচি সবুজ পাতা। যার পাতা যত সবুজ সে ততটাই সুখি। আর রঙ বেরঙয়ের ফুল হচ্ছে নানা সুখের গল্পসমগ্র। সুখ গল্পসমগ্র লিখতে আগে ঝরা পাতার গল্প শুনতে হয়। তখন শীতকাল আসে। শীতকাল পার হবে ঝরা পাতার দিন শেষে দুঃখগুলো মিলিয়ে যাবে। সবুজ কচি পাতায় নতুন নতুন সুখ দেখা যাবে। বসন্তে হরেক ফুল। সুখের গল্পসমগ্র চলবে আবার পরের শীত পর্যন্ত।

গন্ধ এর নাম

আমাদের নানা রকম রঙ এর নাম হয়। যেমন: লাল রঙ নীল রঙ বা সবুজ রঙ। স্বাদেরও রকম ফের আছে। শব্দ দিয়ে বলা যায়। যেমন ঝাল মিষ্টি বা টক। কিন্তু নানা রকম গন্ধ এর জন্য কি শব্দ আছে? যেমন গোলাপ ফুলের যে সুবাস সেটাকে কি বলে? কিংবা গোলাপের সুবাস তো হয় অনেক রকম। একেক জাতের গোলাপের এক এক সুবাস। আলাদা আলাদ নাম কি আছে? কিংবা এমন একটা শব্দ যা বললে বুঝতে পারবো সেই গন্ধটাকেই বলা হচ্ছে?

কোন একটা গন্ধ নামকরণ করতে হলে বলতে হয় অমুক ফুলের গন্ধ। এমন কিছু কি নেই যা বললে গন্ধটাকে সংজ্ঞায়িত করা যায়? আর যদি নানা রকম গন্ধের নামকরণ না করা হয়ে থাকে, আমরা করতে পারি 🙂