মহাকাশ গবেষণা মানে কেবল ভিন গ্রহে প্রাণ অনুসন্ধান না

ইতিহাস সৃষ্টি করে ভারতের মঙ্গল যান মঙ্গল গ্রহের কক্ষপথে – এ সংক্রান্ত বাংলা সংবাদগুলো পড়ছিলাম। পুরনো খবর। পড়তে পারি নাই তাই পড়ছিলাম। অনেক পত্রিকা লিখছে যানটি মঙ্গলগ্রহে পৌছেছে (!!!) হা হা
আমরা কখনো এভাবে কি ভেবে দেখি, কি পরিমাণ টেকনোলজিক্যাল উন্নয়ন করলে পরে এরকম একটা অভিযান করা সম্ভব? আমরা কেবল নিউজটা পড়েই অন্য নিউজ ক্লিক করে বা স্ক্রোল করে চলে যাই।

একটা ছবি মাঝে মাঝেই শেয়ার টেয়ার দেখি, চীন, জাপান, রাশিয়া এবং আমেরিকার ট্রেনের সাথে তুলনামূলক চিত্র দেয়া থাকে বাংলাদেশের ট্রেন এর। সেখানে দেখানো হয়, বাংলাদেশের ট্রেন যাচ্ছে পানির উপর দিয়ে! আসলে রাস্তায় পানি জমে সেটার উপর দিয়ে যাচ্ছে। অন্য ট্রেনগুলো যেখানে ঘন্টায় ১০০ কিলোমিটার গতি উঠা সাধারণ ব্যাপার, সেখানে আমাদের ট্রেন যায় মনে হয় বেবি ট্যক্সির গতিতে!
ট্রেন বাস দূরের কথা, আর মহাকাশ! মহাকাশ গবেষণা মানে কেবল ভিন গ্রহে প্রাণ অনুসন্ধান না কিংবা রহস্য উদঘাটন। এর পেছনের উদ্দেশ্য হচ্ছে প্রচুর টেকনোলজিক্যাল উন্নয়ন করা। যার সে ক্ষমতা বেশি থাকবে. পৃথিবীর উপর তার খবরদারিও থাকবে বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *