স্বপ্ন বিভ্রান্তি

স্বপ্ন দেখতে দেখতে, আর দেখাতে দেখাতে স্বপ্নের লম্বা লিস্টি হয়ে গেলো! কিন্তু স্বপ্ন আর বাস্তব হল না। জ্ঞানী, গুণী, মুর্খ্য, দোষী, মন্ত্রী, ফন্ত্রী সবাই কেবল স্বপ্ন দেখতে বলেন, তারা স্বপ্ন দেখান! স্বপ্ন দেখলেই তা বাস্তবায়নের পথ তৈরি হবে! ভালো কথা। আমরা তরুণ হ্যান ত্যান, নানা কথা, স্বপ্ন দেখানোর জন্য বলে, আমার মনে হয় ঘুম পারানি গান শোনানো হচ্ছে। শেষে আমরা সবাই ঘুমের মধ্যে স্বপ্ন দেখি। ঘুম শেষ, স্বপ্ন দেখাও শেষ।

উচ্চ পর্যায়ের এই সব ব্যক্তিবর্গরা কি স্বপ্ন দেখানো বন্ধ করতে পারেন না? বন্ধ করে পথ বাতলে দিতে পারেন না, আহ্বান জানাতে পারেন না আসেন স্বপ্নগুলো বাস্তবায়ন করি! স্বপ্ন দেখার আর কি বাকী আছে?

স্বপ্ন দেখা মানে কি তরুণরা বিল গেটস হতে চাইবে? কিংবা মার্ক জাকারবার্গ কিংবা সার্গেই বিন হতে? স্বপ্ন দেখা মানে কি টাকা উপার্জন?

আমরা স্বপ্ন নামের মূলা দেখে দেখে বয়স বাড়াই। বয়স বাড়তে বাড়তে চোখে ছানি পরে যায়। তখন আর মূলাও দেখি না। এই সমস্ত লোকগুলা স্বপ্নকে মূলা বানিয়ে তরুণ নামের বিশেষায়িত শব্দ কে প্রবীণ ই বানাচ্ছেন। হাস্যকর সব কথা বার্তা। হ্যান করতেছি ত্যান করতেছি।

বাঙলাদেশ জনসংখ্যার দিক থেকে ৮ম। এই ১৬ কোটি মানুষের স্বপ্ন তালিকা কম হবে না। সবার সাধারণ স্বপ্নগুলো কি কি? একটু ভালো ভাবে বেঁচে থাকাই তো? সেটা কি সম্ভব হচ্ছে? সাধারণ শিক্ষাব্যবস্থার যাচ্ছে তাই অবস্থা! খাবার এ ভেজাল! নেই নিরাপত্তা। স্বপ্ন কি বাসার ছাদ দিয়ে চুইয়ে চুইয়ে পড়বে?

সব কিছুর আগে প্রয়োজন একটা পরিবেশ। একটা সুন্দর নিরাপদ পরিবেশ। সেখানে নিরাপত্তা থাকবে। শিক্ষা চিকিৎসা নিশ্চিত থাকবে। সবার জন্য থাকবে বাসস্থান। বাঘকে বিড়ালের সাথে বড় করলে বাঘ কিন্তু বিড়ালই হবে।

একটা গল্প আছে, এক ঈগল ঘটনাক্রমে ডিম পারে বন মোরগের বাসায়। সেই ডিম ফুটে ঈগলের বাচ্চা হয়। ঈগলের বাচ্চা, অন্য বন মোরগের বাচ্চার সাথে বড় হতে থাকে। ঐ ঈগলের বাচ্চা যখন আকাশে ঈগল পাখিকে উড়তে দেখে, তখন পালিত মা বন মুরগী কে জিজ্ঞাসা করে, আমি কি ঐ সুন্দর পাখির মতন উড়তে পারবো? মা বন মুরগী জানায়, না তুমি ঐ সুন্দর পাখির মতন উড়তে পারবে না। কারণ তুমি বন মোরগ! ঈগলের বাচ্চাটা মন খারাপ করে। নিজের ভেতরের সত্ত্বাকেও জানতে পারল না। এক সময় বড় হয়, তারপর সে মারা যায়। কিন্তু সে একবার যদি চেষ্টা করতো, দেখি তো আমি পারি কিনা! আমি পারি কিনা উড়তে ঐ সুন্দর পাখির মতন!

পাখিটির উড়তে চাওয়াটা ছিল স্বপ্ন আর দেখিতো পারি কিনা প্রবণতা হতে পারতো বাস্তবায়ন করার ধাপ। বনমোরগের সাথে বাস করা ছিল তার পরিবেশ। দেখা যাচ্ছে, পরিবেশ তার চিন্তা চেতনায় প্রভাব ফেলে। সে অনুসন্ধিৎসু হতে পারে, সে প্রশ্ন করতে পারে? কিন্তু সেই পরিবেশ স্বপ্ন দেখতে দিবে না। চেষ্টা করতেও দিবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *