দরিদ্র জন্মদিন উদযাপন সারা দিন

দিনটা বিশেষ ভাবে উদযাপন করার ইচ্ছা ছিল। নানা জটিলতায় আর করা গেল না। কিন্তু সেই আক্ষেপ আর রইলো যখন জানতে পারলাম সারা দেশবাসীর নানা আয়োজন এর খবর।

আয়োজন এর হেতু কি তা আপনারা সবাই জানেন। আজ ছিল আমাদের দরিদ্রের ১+ এবং ৩০- তম শুভ জন্মদিন। দরিদ্রের জন্মদিন উপলক্ষ্যে গতকাল থেকেই ব্যাপক কপিপেস্ট শুভ জন্মদিন পোস্ট হতে থাকে ওয়ালে। সেই মাত্রা এতটা বেশি ছিল যে শেষ পর্যন্ত মার্ক জাকারবার্গ দরিদ্রকে ফেসবুকে বিশেষ ম্যাসেজে কৃতজ্ঞতা ও শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন। সেখানে তিনি জানান, ডরিড্র তুমই বড় হও।

দেশের প্রথিশযশা কৃত্তি সন্তান দরিদ্র এর জন্মদিন হওয়া সত্ত্বেও দেশের রাষ্ট্র প্রধান কেও ই কোন পৃথক বানী দেন নি। এমনকি বিরোধী দলীয় নেত্রী এবং তার হাসব্যান্ড এরশাদ কথা দিয়েও বিবৃতি দেন নি। এই খবর জানামাত্র সাবেক বিরোবী নেত্রী এক তীব্র ধিক্কার পত্র দিয়ে দিয়েছেন। এবং দরিদ্রকে বিশেষ শুভেচ্ছা জানিয়েছে। সেই শুভেচ্ছা স্ক্যান কপি দরিদ্র অচিরেই আপনাদের দেখাবে।

দরিদ্র ভাষ্যমতে তার দিন শুরু হয় রাত ১২টার পর ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার পরিবর্তন করার মাধ্যমে। এবং দিন শেষ করেন উপখ্যান লেখা পোস্ট করার মধ্য দিয়ে। এর মাঝখানে সারা দেশবাসীর ব্যাপক আয়োজন ছিল তা বলে শেষ করা যাবে না।

পরিশেষে, নামে দরিদ্র অথচ কাজে নয়, এই দরিদ্রকে জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা। লাস্টওয়ান ৪টার মধ্যে দরিদ্র আরো দরিদ্র হোক, সেই কামনা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *